Categories
Uncategorized

চোখের সামনে সরষে ফুল!

ফারুখ আহমেদ

ঢাকার কাছেই শ্রীনগরের নাগেরপাড়া গেলে ঘুরে আসতে পারেন হলুদ সরষে ফুলের এই মাঠে। ছবি: লেখক
চোখে সরষে ফুল দেখা মানে বিপদ। আর চোখ দিয়ে প্রকৃতির সরষে ফুল দেখা আনন্দের। দারুণ এক অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের শীতের প্রকৃতিতে।
শীতের এই সময়ে সরষে ফুলের দারুণ হলদে প্রকৃতি দেখে আসতে পারেন চাইলেই। যেমন ঢাকার কাছেই আছে নন্দনকোন। মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগরের নন্দনকোন নামেই মুগ্ধতা ছড়ায়। যখন সরষে ফুল দেখার আমন্ত্রণ পেলাম তখন আর না করতে পারলাম না। চিকিৎসক নাজমুল হকের সঙ্গে পৌষের এক সকালে পথে নামলাম। শ্রীনগর খুব বেশি দূরে নয়। বাবুবাজার ও ধলেশ্বরী জোড়া সেতু পার হয়ে নিমতলী এসে নাশতা খেলাম। সেখান থেকে নন্দনকোন আধা ঘণ্টার পথ। ঘোর-লাগা কুয়াশা অনেকখানি বিদায় নিয়ে সূর্য উঁকিঝুঁকি দিচ্ছে, আবার পথ সঙ্গী হলো। এবার নিমতলী থেকে এগিয়ে বাঁ দিকে চৌধুরী সড়কের দক্ষিণমুখী পথে আমাদের যাত্রা। সাতগাঁও পর্যন্ত যেতে পারিনি, তার আগেই দুই চোখ হলুদাভ উজ্জ্বল রং নিল।

বাসাইল, সিরাজদিখান
প্রথম দৃষ্টিতেই প্রেমে পড়ার অবস্থা যাকে বলে। জায়গার নাম নাগেরপাড়া। নাগেরপাড়া সেতুর ওপর দাঁড়িয়ে আশ্চর্য হয়ে দেখি উজ্জ্বল হলুদ রঙে মাঠ সেজেছে। শুধু হলুদ বললে ভুল হবে। একবারে স্বর্ণাভ হলুদ। সরষে খেতের সেই হলুদ রং যেন আকাশে মিশেছে, সঙ্গে কচি সরষে ফুল দুলছে মিষ্টি উত্তরে হাওয়ায়। আমরা পায়ে পায়ে সরষে খেতের দিকে এগিয়ে গেলাম। আহা, সরষে ফুলের সৌরভে কী আশ্চর্য মাদকতা! সে মাদকতার টানেই মৌমাছিদের ভিড়। আর বকপাখিদের আনাগোনা। আমি এবার ছেলেমানুষের মতো মৌমাছির পেছন পেছন ছুটলাম এবং শেষ পর্যন্ত একটা মৌমাছি ধরেই শান্ত হলাম। তারপর ছবি তোলায় মনোযোগ। ছবি তোলায় মগ্ন আমি হঠাৎ দেখি একটি মানুষের মাথা হলুদ ফুঁড়ে বের হলো। খেয়াল করিনি আশপাশে অনেক গৃহবধূ সরষে খেতে কাজ করছেন। কেউ-বা সরষে শাক কুড়াচ্ছেন। এভাবেই সরষে ফুলে আমরা মোহাবিষ্ট হয়েছিলাম এক ঘণ্টা। পেটে টান পড়তে আমাদের মোহ ভাঙে। আমরা নন্দনকোনের পথ ধরি।
প্রয়োজনীয় তথ্য
সরষে দেখার এখনই সময়। সারা দেশ সরষে ফুলের হলুদ রঙে রঙিন হয়ে আছে। সরষে ফুলের সৌন্দর্য ও তার সুবাসে মুগ্ধ হতে চাইলে আজই বেরিয়ে পড়ুন। চলে যান ঢাকা থেকে মাওয়া রোড ধরে আবদুল্লাহপুর, লৌহজং বা সাইনপুকুর। এখানে পথে পথে সরষে ফুলের মুগ্ধতা। মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানের গ্রাম বেজেরহাটি, বাসাইল হয়ে নাগেরপাড়া বা নন্দনকোন, ডেমরা হয়ে নরসিংদী বা আমিনবাজার পার হয়ে মানিকগঞ্জ। যেখানেই যান পুরোটাই মনে হবে হলুদ দুনিয়া।